July 21, 2024 11:47 am
Home Featured মনোস্পুল পেপারের একীভূত ইস্যুতে শেয়ারদর কমেছে ৩৬ শতাংশ

মনোস্পুল পেপারের একীভূত ইস্যুতে শেয়ারদর কমেছে ৩৬ শতাংশ

by fstcap

পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নির্দেশনা অনুযায়ী পরিশোধিত মূলধন ন্যূনতম ৩০ কোটি টাকায় উন্নীত করতে উদ্যোগ নেয় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি বাংলাদেশ মনোস্পুল পেপার ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড। এজন্য কোম্পানিটি রাইট শেয়ার ইস্যু করার পাশাপাশি সহযোগী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে একীভূত হয়েছে। একই সঙ্গে পরিশোধিত মূলধন ন্যূনতম ৩০ কোটি টাকায় উন্নীত করেছে। তবে একীভূত হওয়ার পর থেকে কোম্পানিটির শেয়ারদর ক্রমান্বয়ে কমছেই। গত ৩১ জানুয়ারি একীভূত হওয়ার পর থেকে আজ সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত ১৪ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ৩৬ শতাংশ। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, বাংলাদেশ মনোস্পুল উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান পার্ল পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলস লিমেটেডকে একীভূতকরণের সিদ্ধান্তে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির অনুমতি পান গত ৩১ জানুয়ারি। দুই কোম্পানি একীভূত হওয়ার পর থেকেই কোম্পানির শেয়ারের দাম কমছে। গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি দর ছিলো ২৩৭ টাকা ৫০ পয়সা। আর আজ সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) শেয়ারটির দর কমে দাড়ায় ১৫১ টাকা ৬০ পয়সায়। অর্থাৎ মাত্র ১৪ কার্যদিবসে শেয়ারটির দর কমেছে ৮৫ টাকা ৯০ পয়সা বা ৩৬ দশমিক ১৬ শতাংশ।

 

জানা গেছে, গত বছরের ১১ মার্চ বিডি মনোস্পুলের ১৮৮তম পর্ষদ সভায় পার্ল পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলস লিমেটেডকে একীভূতকরণের সিদ্ধান্ত অনুমোদিত হয়। একীভূতকরণে কোম্পানিটি বিএসইসি ও হাইকোর্ট বরাবর আবেদন করে। গত ৩১ জানুয়ারি উভয় প্রতিষ্ঠান এই আবেদনে সম্মতি দেয় বলে ঢাকা স্টক একচেঞ্জকে জানানো হয়।

ডিএসই সূত্র মতে, দুই কোম্পানির একীভূতকরণে ১৪ ও ১৫ ফেব্রুয়ারি স্পট মার্কেটে লেনদেন করে বিডি মনোস্পুল। এর জন্য গতকাল ১৮ ফেব্রুয়ারি কোম্পানিটির রেকর্ড ছিলো। রেকর্ড তারিখের পরেরদিনে একদিনেই কোম্পানিটির শেয়ারদর কমেছে ৩১ শতাংশের বেশি। গতকাল রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) কোম্পানিটির শেয়ারদর ছিলো ২২০ টাকা ৯০ পয়সা। আর আজ বাজার শেষে শেয়ারদর দাড়িয়েছে ১৫১ টাকা ৬০ পয়সায়। অর্থাৎ একদিনে শেয়ারটির দর কমেছে ৬৯ টাকা ৩০ পয়সা বা ৩১ দশমিক ৩৭ শতাংশ।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ মনোস্পুল পেপার ম্যানুফ্যাকচারিং পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয় ১৯৮৯ সালে। পরবর্তীতে ব্যবসায়িক পরিস্থিতির অবনতির কারণে কোম্পানিটিকে মূল মার্কেট থেকে ওটিসি মার্কেটে স্থানান্তর করা হয়। প্রায় এক যুগ পর ২০২১ সালের ১৩ জুন কোম্পানিটি মূল মার্কেটে লেনদেন শুরু করে। মনোস্পুল পেপার ১০ শতাংশ বোনাস শেয়ার ইস্যু করায় কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন দাঁড়ায় ১০ কোটি ৩২ লাখ ৭৭ হাজার ৭৬ টাকা। আর বিএসইসির অনুমোদিত ২ কোটি ৩৭ লাখ ৭৭ হাজার ৩৯৪টি শেয়ার একীভূত করার ফলে কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন দাঁড়ায় ৩৪ কোটি ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকায়। আর দুই কোম্পানির শেয়ার একত্রীকরণে বিডি মনোস্পুলের মোট শেয়ার সংখ্যা ৩ কোটি ৪১ লাখ ৫ হাজার ১০১টি। মোট শেয়ারের মধ্যে ৪৫ শতাংশ উদ্যোক্তা ও পরিচালকের কাছে রয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের হাতে ১০ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে ৪৪ দশমিক ৮৩ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

source: orthosongbad.com

 

MONOSPOOL PAPER MANUFACTURING COMPANY LTD share price low bsec

You may also like