May 24, 2024 5:04 pm
Home National ডেসকোর লোকসান ১৫২ কোটি টাকা

ডেসকোর লোকসান ১৫২ কোটি টাকা

by fstcap

ডলারের বিপরীতে টাকার অবমূল্যায়নের কারণে চলতি ২০২৩-২৪ হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) বড় লোকসান গুনেছে ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (ডেসকো)। আলোচ্য প্রান্তিকে কোম্পানিটির নিট লোকসান হয়েছে ১৫১ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। আগের হিসাব বছরের একই প্রান্তিকে কোম্পানিটি মুনাফা করেছিল ১১ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। কোম্পানিটির প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদন পর্যালোচনায় দেখা যায়, ২০২৩-২৪ হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে ডেসকোর নিট আয় হয়েছে ১ হাজার ৮৫৭ কোটি ৭৭ লাখ টাকা, আগের হিসাব বছরের একই প্রান্তিকে যা ছিল ১ হাজার ৪৫২ কোটি ৩০ লাখ টাকা। চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে বৈদেশিক মুদ্রা ওঠানামাজনিত কারণে কোম্পানিটির ক্ষতি হয়েছে ৪৪ কোটি ১৪ লাখ টাকা। আগের হিসাব বছরে এ খাতে ক্ষতি ছিল মাত্র ৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। আলোচ্য হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান ছিল ৩ টাকা ৮২ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২৯ পয়সা।

কোম্পানিটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময় হারের ওঠানামার কারণে কোম্পানির লোকসান হয়েছে। এছাড়া বাল্ক ও রিটেইল পর্যায়ে ট্যারিফ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অসামঞ্জস্যের কারণে বিতরণ পর্যায়ে কোম্পানিটির আয় কমে গেছে। আলোচ্য সময়ে বাল্ক ট্যারিফ ২৮ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ বাড়ার বিপরীতে রিটেইল ট্যারিফ বেড়েছে ১৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ। সব মিলিয়ে এসব কারণে কোম্পানিটির লোকসান হয়েছে।

সর্বশেষ সমাপ্ত হিসাব বছরে ডেসকো বিদ্যুৎ বিতরণ বাবদ ২৬৮ কোটি টাকা আয় করেছে, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৫২১ কোটি টাকা। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটি মোট পরিচালন আয় হয়েছে ৪২১ কোটি টাকা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ৬৯৫ কোটি টাকা। সর্বশেষ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির প্রত্যক্ষ পরিচালন ব্যয় ও অবচয় বেড়েছে। পাশাপাশি এ সময়ে কোম্পানিটির বৈদেশিক মুদ্রা ওঠানামাজনিত কারণে ৪২৮ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে, আগের হিসাব বছরে যা ছিল মাত্র ৮ কোটি টাকা। ২০২৩ হিসাব বছরে কোম্পানিটির ৫৪১ কোটি টাকা কর-পরবর্তী নিট লোকসান হয়েছে। আগের হিসাব বছরে ৬৩ কোটি টাকা নিট মুনাফা হয়েছিল। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি লোকসান হয়েছে ১৩ টাকা ৬১ পয়সা। আগের হিসাব বছরে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৫৯ পয়সা। সমাপ্ত ২০২৩ হিসাব বছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে ডেসকোর পর্ষদ।

২০২১-২২ হিসাব বছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছিল ডেসকোর পর্ষদ। আলোচ্য হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৫৯ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৮৬ পয়সা।

২০২০-২১ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছিল ডেসকো। আলোচ্য সময়ে ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৮৬ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ১ টাকা ১৫ পয়সা।

৩০ জুন ২০১৯-২০ হিসাব বছরেও কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের জন্য ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয়। আগের হিসাব বছরে ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি। তার আগের দুই বছরে ১০ শতাংশ হারে নগদ লভ্যাংশ পেয়েছিলেন কোম্পানিটির শেয়ারহোল্ডাররা।

source: bonikbarta.com

 

You may also like